House 78, Road 14, Block B,
Banani, Dhaka, Bangladesh
Email : mail@unisouthasia.com
admission@unisouthasia.com
02 55034091-2
0176 3030636

ইউনিভার্সিটি অফ সাউথ এশিয়া টেক্সটাইল ডিপার্ট্মেন্টের খুঁটিনাটি।

ইউনিভার্সিটি অফ সাউথ এশিয়া টেক্সটাইল ডিপার্ট্মেন্টের খুঁটিনাটি।
by

www.textilebangla24.com has written an article on the Department of Textile Engineering of the University of South Asia.
Written by: By মুহাইমিনুল ইসলাম অভী |

মোঃ শাওন আহাম্মেদ বাপ্পি, “ইউনিভার্সিটি অফ সাউথ এশিয়া” প্রতিনিধি- মানুষের মৌলিক অধিকারের মধ্যে বস্ত্রের অবস্থান দ্বিতীয়। আর এই বস্ত্রশিল্প বাংলাদেশের অর্থনীতিতে ব্যাপক ভূমিকা পালন করছে। বস্ত্রশিল্পকে আরও উন্নত ও এগিয়ে নেওয়ার জন্য প্রয়োজন সুদক্ষ ও বিশ্বমানের বস্ত্র প্রকৌশলী। আর দক্ষমানের বস্ত্র প্রকৌশলী হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে অন্যতম একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় “ইউনিভার্সিটি অফ সাউথ এশিয়া”।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম অধ্যাপক ড.এম.এ.মতিন । বিশ্ববিদ্যালয়টি ঢাকা শহরের প্রাণকেন্দ্র বনানীর ১৪ নম্বর রোডে অবস্থিত। বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেকটি ভবন যা বনানীর ১৭ নম্বর রোডে অবস্থিত।বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ভবনের কাজ চলছে সাভারের আমিন বাজারে।বিশ্ববিদ্যালয়টি ইউ.জি.সি ও সরকার কর্তৃক অনুমোদিত। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম অধ্যাপক ড.এম.এ.মতিন বাংলাদেশের একজন আদর্শ ব্যক্তিত্ব।তিনি বাংলাদেশের দরিদ্র মানুষের কথা চিন্তা করে এবং তাদেরকে সু-শিক্ষায় শিক্ষিত করার লক্ষ্যে এই বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি ২০০০ সালে সিরাজগঞ্জ জেলায় “উত্তর বঙ্গ মেডিকেল কলেজ” নামে একটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজও প্রতিষ্ঠা করেন । “ইউনিভার্সিটি অফ সাউথ এশিয়া”তে বিভিন্ন বিষয়ে উচ্চ শিক্ষার পাশাপাশি টেক্সটাইল বিষয়েও স্নাতক অর্জনের সুযোগ রয়েছে ।বিশ্ববিদ্যালয়ে টেক্সটাইল বিষয়ক উচ্চ শিক্ষা বি.এস.সি ইন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং এর অগ্রাযাত্রা শুরু হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠা লগ্ন ২০০৩ সাল থেকে । বিশ্ববিদ্যালয়টি ঢাকার প্রাণ কেন্দ্র বনানীর সবুজে ঘেরা, মনোরম ও নিরিবিলি পরিবেশে গড়ে উঠেছে, যা শিক্ষার্থীদের পাঠদানের জন্য খুবই উপযোগী। বর্তমানে উচ্চ শিক্ষা অর্জনের জন্য এটি একটি আধুনিক ও মানসম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, কারণ এই বিশ্ববিদ্যালয়টি একঝাঁক অভিজ্ঞ শিক্ষক মন্ডলী দ্বারা পরিচালিত । বর্তমানে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ারম্যান হচ্ছেন প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক ড.এম.এ.মতিন সাহেবের সুযোগ্য কনিষ্ঠ পুত্র অধ্যাপক ড.মুহাম্মদ.এ.মুহিত, উপাচার্য হিসেবে আছেন অধ্যাপক ড.এম.এ.ওয়াদুদ মন্ডল, সহ-উপাচার্য হিসেবে আছেন অধ্যাপক মো.দিলদার হোসেন এবং রেজিস্টার হিসেবে দায়িত্বে আছেন মুহাম্মদ কামরুজ্জামান ।

বিশ্ববিদ্যালয়টি সম্পূর্ণ রাজনীতি মুক্ত এবং সি.সি ক্যামেরায় আওতাভুক্ত,যা ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য নিরাপদ । বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি ক্লাস শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এবং প্রজেক্টর দ্বারা ক্লাস নেওয়া হয়ে থাকে ।বিশ্ববিদ্যালয়ে রয়েছে একটি অত্যাধুনিক লাইব্রেরি,আধুনিক ল্যাব এবং ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য রয়েছে ওয়াই-ফাই সুবিধা ।এখানকার শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ খুবই বন্ধুসুলভ এবং ছাত্র- ছাত্রীদের পড়াশোনার ব্যাপারে সর্বদা সাহায্যে করে থাকেন ।
এ বিশ্ববিদ্যালয়ে টেক্সটাইল এর চারটি মূল বিষয়ে পড়ানো হয়-
(১) ইয়ার্ণ ম্যানুফ্যাকচারিং
(২) ফেব্রিক ম্যানুফ্যাকচারিং
(৩) ওয়েট প্রসেসিং
(৪) গার্মেন্টস ম্যানুফ্যাকচারিং
বি.এস.সি ইন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সটির জন্য রয়েছে দুটি শিফট-
(১) ডে-শিফট : যা সাধারণত এইচ.এস.সি হোল্ডারদের জন্য। ক্রেডিট-১৩০।সময় লাগবে চার বছর। বছরে ৩ টি সেমিস্টার মোট ১২ টি ।
(২) ইভিনিং শিফট : যা সাধারণত ডিপ্লোমা হোল্ডারদের জন্য।ক্রেডিট-১৩০।সময় লাগবে ৩ বছর। বছরে ৩ টি সেমিস্টার মোট নয়টি।

শিক্ষার্থীদের বর্তমান যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে,সুদক্ষ ও বিশ্বমানের বস্ত্র প্রকৌশলী গড়ে তোলার লক্ষ্যে এবং নেতৃত্বদানের দক্ষতা বাড়ানোর জন্য রয়েছে ক্লাব কার্যক্রম । যেমন- ইউনিভার্সিটি অফ সাউথ এশিয়া টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ক্লাব, ব্লাড ডোনেট ক্লাব,ডিভেট ক্লাব, কালচারাল ক্লাব এর মত বেশ কিছু অঙ্গ সংগঠন। এছাড়া ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য আয়োজন করা হয় বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, খেলাধুলা,বিভিন্ন টুর্নামেন্ট এবং বার্ষিক বনভোজনের ব্যবস্থাও করা হয়। ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে ভালোবাসার অপর নাম “ইউনিভার্সিটি অফ সাউথ এশিয়া” এবং এটি তাদের প্রাণের বিশ্ববিদ্যালয়। “ইউনিভার্সিটি অফ সাউথ এশিয়া” এর মূল লক্ষ্য হচ্ছে বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষের ঘরে ঘরে শিক্ষার আলো পৌছে দেওয়া এবং এদেশের মানুষকে সু-শিক্ষায় শিক্ষিত ও সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলে,এদেশকে বিশ্ব দরবারে প্রতিষ্ঠিত করা।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *